অন লাইন ফিল্ম এবং নিউজও আজ থেকে তথ্য সম্প্রচার মন্ত্রকের আওতায়

ওয়েব ডেস্কঃ

অ্যালোকেশন অফ বিজনেস আইন ১৯৬১ র ২২এর ধারার পর দুটি ধারার সংযুক্তিকরণ হল। ২২এ এবং ২২বি। রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোভিন্দ এর কার্যালয় সুত্রে একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে সংবাদ সংস্থা এএনআই ওই বিজ্ঞপ্তিটি উদ্ধৃত করে জানিয়েছে অডিও ভিসুয়াল অনলাইন ফিল্ম এবং নিউজ ও কারেণ্ট অ্যাফেয়ার্স সংক্রান্ত সব অনুষ্ঠানের ওপর কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রকের নিয়ন্ত্রন জারি হল আজ থেকে।

এর ফলে সোশ্যাল মিডিয়া সহ বিভিন্ন ওটিটি প্ল্যাটফর্ম এবং ইউটিউব, ফেসবুক, টুইটার, ইন্সটাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপ এবং সারা দেশের সমস্ত ওয়েবসাইট ও ডিজিটাল মাধ্যম চলে এল কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রকের আওতায়।

এই নির্দেশের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন সারা দেশের বিভিন্ন নাগরিক মঞ্চ ও অ্যাক্টিভিস্টরা। শহরের দীর্ঘদিনের সমাজকর্মী নব দত্ত এই প্রয়াসকে ও এই সংশোধনকে ‘আইন ও সংবিধানের ওপর হস্তক্ষেপ’ ও ‘সংবিধান বিরোধী’ বলে মনে করেছেন। নব দত্তের মতে এই ঘটনা ভারতকে ‘গণতন্ত্রী’ থেকে ‘স্বৈরতন্ত্রী’ রাষ্ট্রে পরিণত করার পথ প্রসারিত করল। ‘জনগণের কণ্ঠরোধ’ করবার জন্যই এই ‘নিন্দনীয় প্রয়াস’ বলেও জানিয়েছেন তিনি।

শুনে নিন টেলিফোনে ইনসাইড ভিশনকে দেওয়া নব দত্তের প্রতিক্রিয়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *