ভালবাসার জন্য মৃত্যুকে আলিঙ্গন

ওয়েব ডেস্কঃ

কখনও মৃত্যুও গায় জীবনের জয়গান! মৃত্যুও ভালবাসার কথা বলে! মৃত্যু অবশ্যম্ভাবী, তা জেনেও, আমরা মৃত্যুর কথা শুনলেই বিপ্রতীপে ছুট লাগাই। সমরেন্দ্র তা করেন নি। সমরেন্দ্র মুখোপাধ্যায়। প্যাঙ্ক্রিয়াস ক্যান্সারে আক্রন্ত হওয়ার পর যখন ডাক্তার দেখালেন, তিনি জানলেন তাঁর মেয়াদ মেরেকেটে বড় জোর ২মাস। এদিকে বাড়িতে অসুস্থ, স্ত্রী অনুপমা পঙ্গুত্বে আক্রান্ত হয়ে শয্যাশায়ী। সমরেন্দ্র না থাকলে আর কেই বা দেখাশোনা করবে অনুপমার? কী হবে তাঁর পরিণতি?

এসব চিন্তা করতে করতেই এল সমরেন্দ্র-অনুপমার ৫০ তম বিবাহ বার্ষিকী। সিদ্ধান্ত নিলেন ৫০ বছরের অভ্যাস ত্যাগ করা যাবে না। একসঙ্গেই থাকবেন জীবন মরণের সীমানা পেরিয়ে। সহমরণের সিদ্ধান্ত নেন ওই দম্পতি। তারপর কী হল? জানতে তমাল দাসগুপ্ত’র ছোট ছবি “ফিফটিএথ অ্যানিভার্সারি” দেখতে হবে।

পরিচালক তমাল দাসগুপ্ত “ফিফটিএথ অ্যানিভার্সারি” র চিত্রনাট্য নিজেই করেছেন। ‘ক্যামেরা স্টাইলো’ প্রোডাকশানের এই ছবিটির ক্যামেরা সামলেছেন মৃন্ময় মণ্ডল এবং এডিট তাপস চক্রবর্তীর। আমাদের সমাজে প্রবীণ মানুষদের অসহায়তার কথা, তাঁদের প্রেম, আবেগ এবং চরম সিদ্ধান্ত নেওয়ার পিছনে দায়ী কোন কোন পারিপার্শ্বিক পরিস্থিতি তা নিয়েই। এক জটিল সামাজিক ব্যাধির অলিগলিতে ঘুরেছে তমালের প্রশ্নমালা।

ছবিটিতে অভিনয় করেছেন অসিত বসু, অলকানন্দা রায় ব্যানার্জি, ঈশান মজুমদার ও কৌশিক চক্রবর্তী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *